রবিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০১৮

চালু হচ্ছে ঢাকা-কলকাতা বিলাসবহুল তিন তলা বিশিষ্ট ক্রুজ সার্ভিস

ভারত ও বাংলাদেশে বিলাসবহুল ক্রুজে যাত্রীসেবা চালু হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২৫ অক্টোবর) নয়াদিল্লিতে উভয় দেশের সচিবরা এ বিষয়ে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর (এসওপি) চূড়ান্ত করেছেন।কলকাতা থেকে সুন্দরবন হয়ে ঢাকায় এই ভ্রমণ ক্রুজ যাতায়াত করবে।সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘ভিভাডা ক্রুজ’ জানায় যাত্রী পেলেই তারা ক্রুজ পরিষেবা শুরু করবে। ইতোমধ্যে কোম্পানিটির ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।প্রতিষ্ঠানটি জানায়, যাত্রীদের জন্য ১৩ দিন ও ১৪ রাতের প্যাকেজ রাখা হয়েছে। প্রথম চার দিন কলকাতার গঙ্গা সংলগ্ন ট্যুরিস্ট স্পট ঘুরে দেখার পর পঞ্চম দিনে ক্রুজটি ভারতীয় অংশের সুন্দরবনে প্রবেশ করবে।
৬ষ্ঠ দিনে ক্রুজটি প্রবেশ করবে বাংলাদেশে এবং বাংলাদেশের অংশের সুন্দরবন ঘুরে নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দরে যাত্রা বিরতি করবে। সেখানে যাত্রীরা প্রাচীন বাংলার রাজধানী পানমা সিটি ঘুরে স্থলপথে ঢাকায় যাবেন।
এই সেবা নিতে চাইলে, উভয় দেশের যাত্রীদের অবশ্যই পাসপোর্ট ও বৈধ ভিসা থাকতে হবে। ভারতীয় দিকে উত্তর ২৪ পরগণার হেমনগরে ইমিগ্রেশন করা হবে। অন্যদিকে বাংলাদেশের শ্বেতবেড়িয়া বা আংটিহারে ইমিগ্রেশনের কাজ শেষ করা হবে।
ভিভাডা ক্রুজের পক্ষে মণীষা সরকার বলেন, যাত্রীসেবা দেওয়া হবে তাদের তিন তলা বিশিষ্ট অত্যাধুনিক ক্রুজ ‘পরমহংস’-এ। ক্রুজটিতে ২৬টি এসি রুম রয়েছে। এছাড়া, রেস্টুরেন্ট, স্পা ও জিম ব্যবহার করতে পারবেন যাত্রীরা। রয়েছে বার কাউন্টার।
বিজনেস ক্লাস সুবিধার জন্য যাত্রীদের খরচ করতে হবে প্রতিদিন জনপ্রতি ১৭,৮৭৫ টাকা আর ইকনোমি ক্লাসে খরচ হবে ১৬,৫০০ টাকা।
মণীষা সরকার আরও জানান, একসঙ্গে কমপক্ষে ১৫টি রুম বুকিং হলে তবেই ক্রুজ চলবে। তবে প্রতিদিন নয়