বুধবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৮

যাত্রীর অভাবে ২০টি হজ্ব ফ্লাইট বাতিল

যাত্রী না পাওয়ায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের আরও দু’টি হজ্ব ফ্লাইট বাতিল করেছে বাংলাদেশ বিমান। বাতিল করা ফ্লাইট দু’টি হলো বিজি১০৯৩ ও বিজি৩০৯৩। এ নিয়ে চলতি বছর মোট ২০টি হজ্ব ফ্লাইট বাতিল করা হলো। এতে বিমানের ক্যাপাসিটি লস হয়েছে ৮ হাজার জন যাত্রীর।ফ্লাইট দু’টি বুধবার (১৫ আগষ্ট) হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৌদি আরবের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল।
মঙ্গলবার (১৪ আগস্ট) বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ বলেন, পর্যাপ্ত যাত্রী না পাওয়ায় বুধবার (১৫ আগষ্ট) বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের দু’টিজ্ব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এগুলো হলো বিজি১০৯৩ ও বিজি৩০৯৩। 


এদিনই চলতি বছর বিমানের ফ্লাইট অপারেশন শেষ হচ্ছে। তবে সৌদি এয়ারলাইনস ১৭ আগষ্ট পর্যন্ত যাত্রী বহন করবে।
মঙ্গলবার মোট ৮টি ফ্লাইটযোগে হজ্বযাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের দু’টি ও সৌদি এয়ারলাইনসের ছয়টি ফ্লাইট। এখন পর্যন্ত ৩৪২টি ফ্লাইটে ১ লাখ ১৮ হাজার ৮৬০ জন হজ্বযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ১৬৪টি ফ্লাইটে গেছেন ৬১ হাজার ৪৯৭ জন ও সৌদি এয়ারলাইনসের ১৭৮টি ফ্লাইটে ৫৭ হাজার ৪৫৩ জন।
হজ্ব অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ভিসা না পাওয়া ৭২৭ হজ্বযাত্রীর মধ্যে ১২১ জনের পাসপোর্ট ভিসার জন্য পাঠানো হয়েছে। তাদের ভিসাও শেষ পর্যায়ে। বাকি ৬০৬ জন হজ্বযাত্রী এ বছরের জন্য আর হজ্বে যেতে পারবেন না বলে স্বেচ্ছায় ভিসার জন্য আবেদন করা থেকে নিজেদের বিরত রেখেছেন।
তিনি বলেন, এবার কোনো এজেন্সির বিরুদ্ধে কোনো হজ্বযাত্রী প্রতারণার অভিযোগ করলে সেই এজেন্সির নিবন্ধন বাতিলসহ তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।