বৃহস্পতিবার, ২২ মার্চ, ২০১৮

বসবাসের জন্য সেরা শহর ভিয়েনা, ঢাকা ২১৬

নিউজ ডেস্ক:বসবাসের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে ভালো শহর হিসেবে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনার নাম আবারও উঠে এসেছে। নিউ ইয়র্কভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান মার্সারের সবচেয়ে সুন্দর শহরের তালিকায় এই নিয়ে পরপর নয়বার শীর্ষস্থান ধরে রাখল ভিয়েনা।

অন্যদিকে বসবাসের জন্য সবচেয়ে খারাপ শহরের খেতাবটি পেয়েছে ইরাকের রাজধানী যুদ্ধবিধ্বস্ত বাগদাদ। আর তালিকায় বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার অবস্থান ২১৬ নম্বরে।

তালিকার শীর্ষে রয়েছে দানিউব নদীর তীরে অবস্থিত ভিয়েনা। মনোরম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এ শহরে জীবনযাত্রার মান সবচেয়ে ভালো।
মার্সার ২৩১টি শহরের ওপর জরিপ চালিয়ে তালিকাটি করে। এটি করতে গিয়ে তারা রাজনৈতিক পরিবেশ, স্বাস্থ্য পরিষেবা, শিক্ষা, অপরাধের মাত্রা, পরিবহন পরিকাঠামো, বিদ্যুৎ, খাবার পানি, ডাকব্যবস্থা ও বিনোদনের ব্যবস্থার ওপর জোর দেয়। প্রতিষ্ঠানটি প্রতিবছরই এই জরিপ করে থাকে।

তালিকায় বৈশ্বিক কেন্দ্র বলে পরিচিত লন্ডন, প্যারিস, টোকিও ও নিউ ইয়র্কের জায়গা শীর্ষস্থানে হয়নি। এগুলো জার্মানি, স্ক্যান্ডিনেভিয় দেশ কিংবা কানাডার চেয়েও পিছিয়ে রয়েছে।

ভিয়েনার জনসংখ্যা প্রায় সাড়ে ১৮ লাখ। খাবার, পরিবহন থেকে শুরু করে থিয়েটার, জাদুঘর ও অপেরার সব জায়গায়ই দেশটিতে ব্যয় পশ্চিমা দেশগুলোর তুলনায় কম। সুগঠিত নগর কাঠামো, নিরাপদ রাস্তাঘাট আর ভালো গণস্বাস্থ্যসেবা ভিয়েনাকে বসবাসের জন্য বিশ্বের সেরা শহরে পরিণত করে তুলেছে বলে প্রতিবেদনে মন্তব্য করা হয়।

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে যুদ্ধ ও সাম্প্রদায়ীক সহিংসতার কারণে তালিকায় সবচেয়ে নিচে রয়েছে। মার্সারের বিবেচনায়, এ বছর শহরটি বসবাসের জন্য সবচেয়ে খারাপ বলে চিহ্নিত হয়েছে।

তালিকার শীর্ষস্থানীয় শহরগুলো-
১. ভিয়েনা
২. জুরিখ
৩. অকল্যান্ড
৪. মিউনিখ
৫. ভ্যানকুভার
৬. ডাশেলডর্ফ
৭. ফ্র্যাংকফুর্ট
৮. জেনেভা
৯. কোপেনহেগেন
১০. ব্যাসেল
১১. সিডনি
১২. অ্যামস্টারডাম
১৩. বার্লিন
১৪. বার্ন
১৫. ওয়েলিংটন
১৬. মেলবোর্ন
১৭. টরন্টো
১৮. লুক্সেমবার্গ
১৯. অটোয়া
২০. হ্যামবার্গ