রবিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০১৭

সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের স্বীকৃতি পেল ২৮ প্রতিষ্ঠান

আজকাল রিপোর্ট: ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশের (আইসিএবি) সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে বিভিন্ন খাতের ২৮ প্রতিষ্ঠান। ২০১৬ সালে প্রস্তুত করা নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য মোট ১৩টি ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অধিকাংশই দেশের শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি। গতকাল ২৫ নভেম্বর রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিদের কাছে পুরস্কার তুলে দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।
আইসিএবি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের সেরা আর্থিক প্রতিবেদন বাছাইয়ের জন্য সাবেক অর্থ সচিব এম মতিউল ইসলামকে প্রধান করে ছয় সদস্যবিশিষ্ট জুরি বোর্ড গঠন করা হয়।

জুরি বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন— সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা অধ্যাপক ওয়াহিদউদ্দীন মাহমুদ ও রোকিয়া আফজাল রহমান, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী ও ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক এএইচএম মোয়াজ্জেম হোসেন। জুরি বোর্ড বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের আর্থিক প্রতিবেদন যাচাই-বাছাই করে ১৩টি ক্যাটাগরিতে মোট ২৮ প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কারের জন্য বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করে। এ বছর প্রথমবারের মতো ‘ডাইভার্সিফাইড হোল্ডিংস’ ক্যাটাগরির প্রবর্তন করা হয়েছে।
দেশের ব্যাংকিং ক্যাটাগরিতে আইসিএবি সেরা আর্থিক প্রতিবেদন ২০১৬-এর প্রথম পুরস্কার পেয়েছে বেসরকারি খাতের ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড। যৌথভাবে দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড ও ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড। আর প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড ব্যাংকিং ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে। পাশাপাশি সরকারি ব্যাংকগুলোর মধ্যে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে জনতা ব্যাংক লিমিটেড।
ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক সেবা ক্যাটাগরিতে যৌথভাবে প্রথম পুরস্কার পেয়েছে লংকাবাংলা ফিন্যান্স লিমিটেড ও আইডিএলসি ফিন্যান্স লিমিটেড।  আইপিডিসি ফিন্যান্স লিমিটেড দ্বিতীয় ও ইউনিয়ন ক্যাপিটাল লিমিটেড তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে।

ম্যানুফ্যাকচারিং ক্যাটাগরিতে এবার যৌথভাবে প্রথম পুরস্কার পেয়েছে আরএকে সিরামিকস (বাংলাদেশ) লিমিটেড ও ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেড। তাছাড়া ওরিয়ন ফার্মা লিমিটেড দ্বিতীয় ও গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইন বাংলাদেশ লিমিটেড তৃতীয় সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে।
বীমা ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে প্রাইম ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। তাছাড়া গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড দ্বিতীয় ও রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড তৃতীয় হয়েছে।
এনজিও ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছে সবচেয়ে বড় বেসরকারি সাহায্য সংস্থা ব্র্যাক। তাছাড়া সাজিদা ফাউন্ডেশন দ্বিতীয় ও উদ্দীপন তৃতীয় সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে।
যোগাযোগ তথ্যপ্রযুক্তি ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে গ্রামীণফোন লিমিটেড। 
পাবলিক সেক্টর এনটিটিজ ক্যাটাগরিতে দেশের সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। তাছাড়া ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড (ইডকল) দ্বিতীয় ও বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার ফিন্যান্স ফান্ড লিমিটেড (বিআইএফএফএল) তৃতীয় সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে।
সেবা ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম হয়েছে ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস লিমিটেড। কৃষি ক্যাটাগরিতে গোল্ডেন হারভেস্ট এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে।
করপোরেট সুশাসনের জন্য সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড প্রথম পুরস্কার পেয়েছে। তাছাড়া এ ক্যাটাগরিতে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড দ্বিতীয় ও ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে।
ইন্টিগ্রেটেড রিপোর্টিং ক্যাটাগরিতে আইডিএলসি ফিন্যান্স লিমিটেড প্রথম পুরস্কার পেয়েছে। তাছাড়া এ ক্যাটাগরিতে গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড দ্বিতীয় ও ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে।
প্রথমবারের মতো দেয়া ডাইভার্সিফাইড হোল্ডিংস ক্যাটাগরিতে সার্টিফিকেট অব মেরিট পেয়েছে এসিআই লিমিটেড। বিভিন্ন খাতের মোট আট প্রতিষ্ঠান সার্টিফিকেট অব মেরিট পুরস্কার পেয়েছে।


উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল (সিএজি) মাসুদ আহমেদ ও ফিন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং কাউন্সিলের (এফআরসি) চেয়ারম্যান সিকিউকে মুস্তাক আহমেদ। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে আইসিএবি সভাপতি আদিব হোসেন খান ও রিভিউ কমিটি ফর পাবলিশড অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড রিপোর্টসের (আরসিপিএআর) চেয়ারম্যান পারভীন মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।