রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

বাবা রিকশাওয়ালা ছেলে জেলা প্রশাসক !

সিলেট আজকালঃ     ইচ্ছা থাকলেই উপায় হয় এ কথাটি আরেক বার সত্য প্রমাণিত হলো। অধ্যাবসায় আর প্রবল ইচ্ছা থাকলে সবই সম্ভব। অনেকেই বলে থাকেন গোবরেও নাকি পদ্মফুল জন্মায়।
আজ সেটাই প্রমান করলেন এক রিকশাওয়ালার ছেলে। রিকশাওয়ালার ঘরে জন্ম নিয়েও দেখা যেতে পারে বড় স্বপ্ন। হতে পারেন জেলার প্রধান। হ্যাঁ পাঠক এমনি অসাধ্য সাধন করেছেন গোবিন্দ জিসওয়াল। রিকশাওয়ালার ঘরে জন্ম নিয়েও এখন তিনি হয়েছেন জেলা প্রশাসক।
জানা যায়, ভারতে এমনটি ঘটেছে। এক গরীব রিকশাওয়ালার ঘরে জন্ম নিয়ে রিকশাওয়ালা না হয়ে। হয়েছেন জেলা প্রশাসক। রিকশাওয়ালার ঘরে জন্ম নিয়ে সবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন এই ছেলেটি। তাক লাগিয়ে দিয়েছেন পুরো বিশ্বকে। সম্প্রতি তিনি এক সাক্ষাতকারে তার সফলতার গল্প শুনিয়েছেন। জানিয়েছেন কিভাবে তিনি আইএএস অফিসার হয়েছেন।

তিনি তার সাক্ষাতকারে বলেন, ছোটবেলা থেকেই তিনি আনেক বৈষম্যের শিকার হয়েছেন। খেলাধূলা থেকে শুরু করে ক্লাসে পড়ার সময় পর্যন্ত তিনি বৈষম্যের শিকার হতেন। ছোটবেলায় একবার খেলতে খেলতে এক ধানাঢ্য ব্যাক্তির বাসায় চলে গিয়েছিলেন তিনি। আর এসময় ওই ব্যাক্তি তার সঙ্গে অনেক খারাপ আচরণ করেন।
রিকশাওয়ালার ছেলে বলেই বড়লোকের সন্তানদের সঙ্গে খেলার সাহস দেখানোয় তাকে অপমান করা হয়। আর এই অপমান তাকে মাথা নিচু করে সইতে হয়। সেদিন থেকেই তিনি শপথ নেন একদিন তাকে অনেক বড় কিছু হতে হবে। চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিতে হবে সেই সব ব্যক্তিদের যার গরিবদের অবহেলা করেন। রিকশাওয়ালার ছেলেরাও যে মানুষ তা দেখিয়ে দিতে চান। তাই অনন্ত জেলা প্রশাসক হয়ে হলেও সবকিছুর জবাব দিতে চান তিনি।
সেদিন থেকেই পাল্টে যায় তার জীবনের মোড়। অনেক কষ্টে পড়াশোনা করেছেন তিনি। বাবা রিকশা চালিয়ে পড়াশোনার খরচ জুগিয়েছেন। আর আজ তার সফলতার পেছনে এই হলো গোপন রহস্য।