মঙ্গলবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৭

সিলেট ফ্র‍্যাঞ্চাইজিতে দুই শ্রীলঙ্কান ও এক ক্যারিবীয়ান

স্পোর্টস ডেস্কঃ  বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ক্রিকেটে আবারো ফিরেছে সিলেট ফ্র‍্যাঞ্চাইজি। ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির সবচেয়ে বড় আসরে এবারে নতুন মালিকানায় অংশ নিচ্ছে সিলেট। শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে গত বিপিএলে নিষিদ্ধ ছিল সিলেট সুপারস্টার্স। এক বছর পর পঞ্চম বিপিএলে আবার দেখা যাবে দলটিকে।
প্রত্যাবর্তনে বিপিএলে মালিকানা, দলের নাম বদল ও হোম ভেন্যু নিয়ে মাঠে নামবে সিলেট। নতুন নামে সুরমা সিক্সার্স (প্রস্তাবিত) নিয়ে মাঠে নামবে দলটি। শুধু সিলেট নামে দলই নয়, এবার হোম ভেন্যুও পাচ্ছে দলটি। ঢাকা ও চট্টগ্রামের পর সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামেও হবে বিপিএল পঞ্চম আসরের খেলা।

বিপিএলকে ঘিরে অংশগ্রহণকারী সব’কটি দলই নিজেদের গুছিয়ে নিচ্ছে। আইকন প্লেয়ার, অধিনায়ক ছাড়াও দেশি- বিদেশি ক্রিকেটারদের নিজ দলে ভেড়াতে মহাব্যস্ত ফ্র‍্যাঞ্চাইজি মালিকরা। পিছিয়ে নেই সিলেটও। ইতিমধ্যে সিলেট দলে ভিড়িয়েছে কয়েকজন বিদেশিকে। বিদেশী দলটি ক্রিস জর্ডান, ডেভিড মালান ও লউসনকে নিশ্চিত করেছিলো।
আগের তিন জনের সঙ্গে সিলেট ফ্র্যাঞ্চাইজি নতুন করে তিন জন বিদেশী ক্রিকেটারের সঙ্গে চুক্তি করেছে। দুই লঙ্কান ও একজন ক্যারিবীয়ান ক্রিকেটারদে দলে নিয়েছে দলটি। শনিবার বিকালে মুঠোফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দলের একজন কর্মকর্তা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা বলেন, আমরা আগের তিনজনের সঙ্গে নতুন করে আরো তিনজন ক্রিকেটারের সঙ্গে চুক্তি করেছি।
সিলেট দলে নতুন করে যুক্ত হওয়ারা হলেন ওয়েস্টইন্ডিজের আন্দ্রে ফ্লেচার, শ্রীলঙ্কার  হাসারাঙ্গা ডি সিলভা ও ডাসুন শানাকা।
ক্যারিবীয়ান উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান আন্দ্রে ফ্লেচারের সাথে চুক্তি করেছে সিলেট। ফ্লেচার বিপিএলের গত আসরে খুলনা টাইটান্সের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ২৫ টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। তাছাড়া ৩১ টি আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ৩১ টি টি-২০ খেলা ফ্লেচার রান করেছেন ৫৭৭, সর্বোচ্ছ ৮৪*।
সিলেটে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকরা দুইজন লঙ্কান ক্রিকেটারের সঙ্গে চুক্তি করেছেন। এদের একজন তরুণ ক্রিকেটার রয়েছে। যার বয়স সবেমাত্র কুঁড়িতে পৌছেছে। ২০ বছর বয়সী হাসারাঙ্গা ডি সিলভা মূলত একজন বোলিং অলরাউন্ডার। ডানহাতি ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি লেগ স্পিন যাদু জানেন। ঘরের মাঠে অভিষেকেই করেছিলেন হ্যাট্টিক। বাংলাদেশের তাইজুল ইসলাম ও প্রোটিয়া পেসার কাসিগো রাবাদার পর তৃতীয় ক্রিকেটার হিসাবে যিনি অভিষেকে হ্যাট্টিক করার গৌরব অর্জন করেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৪ টি ওয়ানডে খেলা হাসারাঙ্গা ব্যাট হাতে করেছেন ১৯ রান আর বল হাতে ৪ ম্যাচে নিয়েছিলেন ৮ উইকেট। তবে তরুন এই লংকান অলরাউন্ডারের আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলার অভিজ্ঞতা নেই।
সিলেটের হয়ে মাঠে নামবেন আরেক লংকান অলরাউন্ডার ডাসুন শানাকা। ২৫ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার ২০১২ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলেছেন। শ্রীলঙ্কার জার্সি গায়ে সব ফরম্যাটে খেলা হয়ে গেছে তাঁর। ব্যাট করার পাশাপাশি ডানহাতি মিডিয়াম পেসে ভাল নামডাক রয়েছে তাঁর। শ্রীলঙ্কার হয়ে টি-২০ ক্রিকেটে ১২ টি ম্যাচ খেলা হয়েছে। স্ট্রাইক রেট প্রায় একশোর কাছাকাছি।