সোমবার, ৩ জুলাই, ২০১৭

ভিজিএফের চাল আত্মসাত,কুলাউড়া ইউপি চেয়ারম্যান বুবলী পলাতক

আজকাল ডেস্ক:ঈদ উপলক্ষে বিতরণের জন্য আসা সরকারী চাল আত্মসাতের মামলায় কুলাউড়া সদর ইউনিয়নের  চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার বুবলী পলাতক।কুলাউড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুটি দোকান থেকে ভিজিএফের ১০ বস্তা চাল উদ্ধারের ৪ দিন পর চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামী করা মামলায়  প্রধান আসামী বুবলী পলাতক রয়েছে বলে জানা গেছে। তবে এ ঘটনায় চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার বুবলিকে প্রধান আসামী করা হলেও ধরা-ছোঁয়ার বাইরে রয়েছেন চেয়ারম্যানের স্বামী ও সাবেক চেয়ারম্যান  মো. শাহজাহান। গত ২৯জুন রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামলার তালিকাভুক্ত আসামী ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার জমির আলী, ইউনিয়নের চৌকিদার ও দোকান মালিক মিলন মল্লিক এবং অপর দোকান মালিক সন্ন্যাসী নাইড়ুকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করেছে।স্থানীয় এলাকার কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, কুলাউড়া সদর ইউনিয়নের দুটি দোকান থেকে দু’দফা অভিযান চালিয়ে ১০ বস্তা ভিজিএফ চাল ও ১৩ টি খালি বস্তা উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার সময় ৩জনকে আটক করেছিল পুলিশ। এলাকাবাসীর অভিযোগ মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে পরবর্তিতে আটক ৩ ব্যক্তিকে ছেড়েও দেয়া হয়। এদিকে চাল আটক ও জড়িতদের ছেড়ে দেয়ার ঘটনায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। পুলিশ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার বুবলিকে প্রধান আসামী করে ৪ জনের নামে মামলা রেকর্ড করার পর থেকে বুবলী পলাতক রয়েছে বলে জানান কুলাউড়া থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম।

এদিকে এসব অপকর্মের অন্যতম হোতা চেয়ারম্যানের স্বামী ও সাবেক চেয়ারম্যান মো. শাহজাহানকে মামলায় আসামী না করায় এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করলেও তাকে গ্রেফতার না করায় জনমনে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সর্বোপরি পুলিশের ভুমিকা নিয়ে জনমনে ক্ষোভ বিরাজ করছে। এলাকাবাসী তাই ২৮ জুন কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে ঘটনার প্রতিকার চেয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। যার অনুলিপি দিয়েছেন স্থানীয় এমপি, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার মৌলভীবাজার বরাবরে।