মঙ্গলবার, ৬ জুন, ২০১৭

মালয়েশিয়ায় রমজানে প্রকাশ্যে ধূমপান ও খাবার খাওয়ায় ২ বাংলাদেশি আটক

ধূমপান ও খাবার খাওয়ার কারণে মেলাকা ইসলামিক ধর্মীয় বিভাগ (জাইম) কর্তৃপক্ষ কর্তৃক একজন মালয়েশীয় এবং দুইজন বাংলাদেশীকে আটক করা হয়েছে।প্রধান নির্বাহী রহিমিন বানি জানান, মেলাকা তেংগাহ জেলার ২০ টি স্থানে সকাল ৯ টা থেকে শুরু হওয়া চার ঘন্টার এই অভিযানটি চালানো হয়।এই রমজানে রোজা রাখায় ব্যর্থ হওয়ায় কর্মকর্তারা ২০ থেকে ৪৯ বছর বয়সী তিনজন মুসলিম পুরুষকে বৃহস্পতিবার আটক করে। নির্বাহী কর্মকর্তারা যখন ঘটনাস্থলে আসেন তখন চারদিকে ঘিরে ফেলা হয় ফলে তারা পালাতে পারেনি।



তিনি বলেন, বেলা ২টার সময় কর্মকর্তার যখন স্থানটি ঘেরাও করেন তখন ২০ বছর বয়সী একজন বাংলাদেশি নাগরিককে তোসাই খাওয়া অবস্থায় ধরে ফেলা হয়, যে কিনা মেলাকা বারু’র একটি নাসি কান্দার রোস্তোরাঁর কর্মচারী। কর্মচারীটি নির্বাহী কর্মকর্তাদেরকে এমন অজুহাতও দেখায় যে, তার পেট ব্যাথার কারণে সে রোজা রাখতে পারছিল না।
এছাড়াও ২৪ বছর বয়সী আরেকজন বাংলাদেশী নাগরিক গ্রেপ্তার হয়েছে যে কিনা দুপুর বেলায় বুকিত বারু-র একটি রেস্তোরাঁয় বসে ভাত খাচ্ছিল।
রহিমিন বলেন, রমজান মাসে প্রকাশ্যে খাবার বিক্রয় এবং খাবার খাওয়ার কারণে মেলাকা শরিয়া অপরাধ আইন প্রয়োগ ১৯৯১ এর ৪৯ ধারার অধীনে তদন্ত সম্পাদনের জন্য তাদেরকে অবশ্যই জাইম অফিসে হাজিরা দিতে হবে।
দোষী সাব্যস্ত হলে, রোযা না রাখার ফলে তাদেরকেএক হাজার মালেয়শীয় রিঙ্গিত জরিমানা বা প্রথমবার অপরাধের জন্য ছয় মাসের কারাদণ্ড এবং দ্বিতীয়বার অপরাধের জন্য দুই হাজার মালেয়শীয় রিঙ্গিত জরিমানা বা এক বছরের কারাদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হতে পারে।
তিনি আরও বলেন, মুসলমানদেরকে রোজা রাখার কথা স্মরণ করিয়ে দেয়ার জন্য আমরা উপযুক্ত খাবারের দোকানগুলোতে ২০ টি পোষ্টার টাঙিয়েদিয়েছি। রোজা রাখে না এমন মুসলিমদেরকে ধরতে জাইম কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানোর আজ ষষ্ঠ দিন চলছে।