মঙ্গলবার, ৭ মার্চ, ২০১৭

ওসমানীনগর নির্বাচনে তাহসীনা লুনার চমক

স্টাফ রিপোর্ট:ওসমানীনগরের উপজেলা নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেছিলেন ইলিয়াস আলীর স্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদী লুনা। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আতাউর রহমানকে জয়ী করতে লুনাকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েন সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী। ইলিয়াস আলীর নির্বাচনী আসনের এই উপজেলায় তৎপর ছিলেন তার অনুসারীরা।ইলিয়াসকে ফিরে পাবেন এমনটি আশা করেন তারা। তাকে ফিরে পেতেই ইউনিয়ন পরিষদ থেকে উপজেলা নির্বাচনে ব্যাপক তৎপরতা ছিলো তার অনুসারীদের।জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ বলেন, শুধু নেতাকর্মী না, সিলেটের সকল স্তরের সাধারণ মানুষ প্রিয়নেতা ইলিয়াস আলীকে ফিরে পেতে ও বর্তমান সরকারের সকল অপকর্মের প্রতিবাদে বারবার ব্যালটের মাধ্যমে জানান দেবে।ভোটের সুযোগ পেলেই সিলেটের মানুষ তা কাজে লাগাবে। এই রেজাল্ট তারঁই প্রমাণ।

নেতাকর্মীরা মনে করেন, ইলিয়াস গুম ও নেতাকর্মীদের উপর নানা রকম অত্যচারের কারণেই প্রথম উপজেলা নির্বাচনে নিরব জয় ঘরে তুলে নিলেন ময়নুল হক। তার জয়ে শান্তিপূর্নভাবে শেষ হওয়া ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাচনেও শেষ হাসি হাসলেন ইলিয়াস আলীর অনুগতরা। ময়নুলের সঙ্গে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছেন সিলেট আওয়ামী লীগের তরুন নেতা জগলু চৌধুরী। আর আওয়ামী লীগ প্রার্থী আতাউর রহমান এ প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থানেই রয়ে গেলেন।

রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ওসমানীনগর উপজেলা কার্যালয়ের হল রুমে রির্টানিং কর্মকর্তা ফলাফল ঘোষণা করেন। প্রাপ্ত ফলাফলে বিএনপির প্রার্থী ময়নুল হক চৌধুরী চৌধুরীর ২০হাজার ৭৭৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। আর তার নিকটতম প্রার্থী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী জগলু চৌধুরী ১৮হাজার ৬৭৮ ভোট পান। আর নৌকা প্রতীকে আতাউর রহমান পেয়েছেন ১০ হাজার ৬৮ ভোট। ৫২ টি কেন্দ্রের ফলাফলে এ তথ্য জানা গেছে। ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপি নেতা গয়াস মিয়া ২৯ হাজার ৭০৮ ভোট ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপির মুসলিমা আক্তার চৌধুরী ২৫ হাজার ৫৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

এদিকে, জগন্নাথপুরেও বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি’র প্রার্থী আতাউর রহমান।সুনামগঞ্জ বিএনপি’র আহবায়কের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই প্রতিটি উপজেলায় দলকে সংঘটিত করতে তৎপরতা চালান সাবেক এমপি নাসির উদ্দিন চৌধুরী।দিরাই পৌর বিএনপি নেতা আল-মরিয়াদ তনয় বলেন, বিগত দিনে সুনামগঞ্জে তুমুল আন্দোলন সংগ্রাম হয়েছে নাসির চৌধুরীর নেতৃত্বে। তিনি প্রতিটি উপজেলা, থানা, পৌরসভায় বিএনপিকে শক্তিশালী করেছেন।তার অক্লান্ত পরিশ্রম ও নেতৃত্বের ফসল এই ফলাফল।

জগন্নাথপুরের নির্বাচনে আতাউর রহমানকে দিয়ে জয় ঘরে তুলেছে বিএনপি। ধানের শীষের সঙ্গে লড়াই করেছেন নৌকার প্রার্থী আকমল হোসেন। নির্বাচনে আতাউর রহমান পেয়েছেন ২৯ হাজার ৮৬৩ ভোট। আর প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী আওয়ামী লীগের আকমল হোসেন পেয়েছেন ২৪ হাজার ২৩ ভোট। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন মুক্তাদির আহমদ মুক্তা।