মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

সরোওয়ার হোসাইন খান ইংল্যান্ড প্রবাসী

সরোওয়ার হোসাইন খান প্রতিষ্টাতা Mango Indian যার অবস্থান লন্ডন ব্রিজ এ ও EST India যার অবস্থান লন্ডনের ইউনিয়ন স্ট্রিট এ.যিনি একজন প্রবাসী এবং দীর্ঘ দিন যাবৎ প্রবাসে জীবন যাপন করতেছেন.উনি আমাদের সিলেটের একজন সফল ব্যবসায়ী যিনি নিজেকে ইংল্যান্ড এর লন্ডনে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে প্রতিষ্টিত করেছেন. 
তিনি এখন বাংলাদেশে অবস্থান করছেন উনার বর্তমান ঠিকানা সিলেটের রায়নগর রাজবাড়ী মিতালি এলাকায়.উনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিজ দেশে আধুনিক কিছু করার.
আজ আমাদের সিলেট আজকালের সম্পাদক এর সাথে উনার প্রবাস জীবন নিয়ে কথা হয় উনার প্রবাস জীবনের অনেক ঘটনা এবং কঠিন দিনের কথা উনি আমাদের বলেন যা আপনাদের জন্য তুলে ধরা হলো.

প্রথম কাজ যেভাবে শুরু হয়: ১৯৯৩ সালের জানুয়ারির ২৬ তারিখে আমি ইংল্যান্ড এ পারি জমাই.প্রথম কাজ একটি ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্ট সাধারণ কর্মচারী হবার মাধ্যমে.১৯৯৫ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারী একটি রেস্টুরেন্ট দিয়ে আমার ব্যবসা জীবনের শুরু হয়. কোয়ালিটি কারি হাউস লন্ডনের চীজ উইক হাই স্ট্রিট এ.

আমি যেভাবে একজন প্রতিষ্টিত ব্যবসায়ী হই:১৯৯৫ - ৯৬ সালে আমার প্রথম রেস্টুরেন্ট কোয়ালিটি কারি হাউস ভালো ব্যবসা করতে পারে নাই.অতঃপর এক বৎসর পর আমি এই প্রতিষ্টান ছেড়ে দেই এবং কাজ এর সন্ধান খুঁজি.আমি একটি খুব ব্যস্ত ইন্ডিয়ান রেস্তোরায় কাজ পাই.তৎকা‌লিন সম‌য়ে লন্ডন শহরের অন্যতম ব্যস্ত রেস্তোরা Soho Spice এ কাজ শুরু করি.আমি প্রায় এক বৎসর এই প্রতিষ্টানে কাজ করি.এই রেস্তোরায় কাজ করে আমি এই ব্যবসা সম্পর্কে অনেক কিছু শিখতে পারি এবং অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করি.আমি শিখ‌তে পা‌রি কিভাবে একটি ব্যস্ত প্রতিষ্টান চালানো হয় কিভাবে ক্যাটারিং ব্যবসার মার্কেটিং করা হয় তা আমি রপ্ত করে নেই."আমি মনে করি সফল ক্যাটারিং ব্যবসায়ী হতে হলে প্রথমে প্রয়োজন একটি ভালো ব্যবসার জায়গা নির্ধারণ করা জায়গাটি হতে হবে জনবহুল ও ব্যস্ততম.আপনার ভালো পরিচালনা করার অভিজ্ঞতা থাক‌তে হ‌বে.মূল বিষয় গুলি মানসম্মত খাবার,ভালো সার্ভিস,প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত কর্মচারী".

ক্যাটারিং ব্যবসায় লক্ষণীয় বিষয়:প্রথমেই কর্মচারী হ‌তে হ‌বে দক্ষ দ্বিতীয়ত সময়ের সাথে সাথে ডেকোরেশন খাবারের মেনু তে পরিবর্তন আনা প্রয়োজন.মেনু তে খাবারের দাম হওয়া উচিত খাবারের কোয়ালিটির সাথে মিল বা সামাঞ্জস্য রেখে.

ব্রেক্সিট এর পর বর্তমান ইংল্যান্ড এর অবস্থা: বর্তমান  পরিস্থিতি একটু নাজুক যদিও আমি মনে করি এটা সাময়িক ইংল্যান্ড এর দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার জন্য ব্রেক্সিট সুফল বয়ে আনতে পারে.ব্রেক্সিট ইংল্যান্ড এর জাতিগত কালচার বর্ডার সুরক্ষা এবং অবৈধ অভিবাসীদের থেকে ইংল্যান্ড কে সুরক্ষা করবে।